• Home /Exam Details (QP Included) / Preliminary Exam / General Science / Science And Technology এর কন্সেপ্ট – Recombinant DNA Technology – For W.B.C.S. Examination.
  • Science And Technology এর কন্সেপ্ট – Recombinant DNA Technology – For W.B.C.S. Examination.
    Posted on June 9th, 2021 in General Science
    Tags: , ,

    Science And Technology এর কন্সেপ্ট – Recombinant DNA Technology – For W.B.C.S. Examination.

    By Dipayan Ganguly, WBCS Gr A
    Recombinant DNA technology থেকে প্রশ্ন প্রায় প্রতি বছরই করা হয়। তাই এটা নিয়ে সামান্য কয়েকটা কথা বলা প্রয়োজন বলে মনে করি।Continue Reading Science And Technology এর কন্সেপ্ট – Recombinant DNA Technology – For W.B.C.S. Examination.
     
    Recombinant কথাটা এসেছে recombine কথাটা থেকে। এই recombine মানে কি? এর মানে হল পুনর্গঠন। কিসের পুনর্গঠন ? Gene এর মধ্যে থাকা DNA এর। অর্থাৎ DNA এর কাটাছেঁড়া করে, উদোর পিণ্ডী বুধোর ঘাড়ে চাপিয়ে একটা হযবরল তৈরি করে
    experiment করার তাগিদে কোনো নিরীহ প্রাণী বা host এর ভিতরে ঢুকিয়ে তার genome অর্থাৎ Gene এর ইতিহাস-ভূগোলের বারোটা বাজিয়ে দেওয়া।
     
    তা, এসব করে কি লাভ?
     
    লাভ আছে বৈকি। ধর তোমার ডায়াবেটিস আছে, ইনসুলিন লাগবে। কৃত্রিম উপায়ে ইনসুলিন তৈরি করতে এই পদ্ধতির প্রয়োজন। আবার ধর genetically modified শস্য তৈরি করে খাদ্যসঙ্কট দূর করতে হবে, তার জন্য DNA এর অপারেশন করা প্রয়োজন।
     
    তা, এটা কিভাবে হয়?
     
    প্রথমে তো সেই desired DNA কে আলাদা করতে হবে, অর্থাৎ isolate করতে হবে। DNA এর গায়ে এঁটে থাকা চর্বি, RNA , প্রোটিনকে হটিয়ে একে পরিষ্কার করতে হবে। জল দিয়ে? আজ্ঞে না। Chemical reaction এর ক্ষেত্রে যেমন catalyst বা অনুঘটক ব্যবহার করা হয়, তেমনি Biological reaction এর ক্ষেত্রে enzyme বা উৎসেচক ব্যবহার করা হয়। এই enzyme যেমন Protease প্রোটিনকে চেঁছে ফেলে, তেমন Ribonuclease RNA কে হটিয়ে দিতে সাহায্য করে। আর এর মধ্যে একটু ইথানল ফেলে দিলে তো কথাই নেই, মদের গন্ধে DNA সুড়সুড় করে সুতোর মত লুটিয়ে পড়ে। তখন চামচ দিয়ে DNA কে তুলে নাও।
    DNA তো পেলে। এইবার কি করণীয়? পাঁঠা থেকে নাড়িভুঁড়ি বের করে মাংসখন্ড পেয়ে তো গেছ। এবার কেটে পিস করতে হবে না? কাটতে তো কাঁচি লাগবে।
     
    এই কাঁচি হল Biological কাঁচি যার নাম Restriction enzymes, যারা জানে কোথায় কতটা কাটতে হবে। এই কাঁচি দিয়ে কাটাকে বলে Restriction Enzyme Digestion, এক্ষেত্রে Chemical reaction এ যেমন electrolysis হয়, তেমনি Electrophoresis করে নেগেটিভ চার্জ DNA কে পজিটিভ electrode এর গায়ে সেঁটে দেওয়া হয়।
     
    এবারে একটা DNA তো পেলে। কিন্তু একটাতে কাজ হবে কি? নিশ্চয় নয়। তাই এর অনেকগুলো জেরক্স করতে হবে। এটাকে বলে Polymerase Chain Reaction , যেখানে DNA polymerase এর সাহায্যে একটা থেকে লাখ লাখ ফটোকপি বের করা হল। এর নাম হল Amplification অনেকগুলো DNA পেয়েছি। এইবার কি করব? জুড়ব, আবার কি? কার সাথে? Vector DNA অর্থাৎ যে গিয়ে মাঠে নামবে, মানে যে নিরীহ প্রাণী বা host এর সাথে হানিমুন করবে, তার সাথে। তার মানে কাটাছেঁড়া করা desired DNA আর Vector DNA কে জুড়ে দেওয়া হল। এই প্রক্রিয়ার নাম হল Ligation অর্থাৎ লাগানো। কিন্তু লাগাতেও তো উৎসেচক লাগবে, কাজেই এখানে DNA ligase এর সাহায্য নেওয়া হল। এবারে লাগানোর ফলে যেটা তৈরি হল, সেটাকেই আমরা বলব recombinant DNA এইবারে এই recombinant DNA কে host এর মধ্যে ঢোকাতে হবে। এখানে host কে? বড় বড় জিনিসের ক্ষেত্রে
     
    ল্যাবরেটরিতে যেমন গিনিপিগ, তেমনি DNA এর মত ছোট জিনিসের জন্য ব্যাকটিরিয়া। এত জিনিস থাকতে ব্যাকটিরিয়া কেন?
     
    কারণ ব্যাকটিরিয়ার মধ্যে replication টা ভালো হয়, মানে একটা থেকে আরেকটা চটপট তৈরি হয়ে যায়। এই যে host এর মধ্যে recombinant DNA কে ঢোকালাম, এটাকে আমরা বলব Transformation, অর্থাৎ host একদম নতুন ধরণের DNA পেয়ে Transform হয়ে গেল।
     
    এরপরে আর বিশেষ কাজ নেই, recombinant DNA টা host এর মধ্যে একটা থেকে অনেকগুলো হয়ে যায়, রক্তবীজের মত। এটা recombinant protein ছাড়া আর কিছুই নয়। তবে কিনা ল্যাবরেটরিতে আর কতই বা DNA এর চাষ করা সম্ভব। তাই commercial উৎপাদনের জন্য Bioreactor এর প্রয়োজন হয়, অনেকটা nuclear reactor এর মত, যেখান থেকে লাখ লাখ genetically modified জিনিস বেরোতে থাকে।
     
    আম আদমির কাছে পৌঁছনোর আগে quality test করা হয়। এটাকে পালিশ করে ঝাঁ চকচকে তৈরি করা হয়। এটাকে আবার নাম দেওয়া হয়েছে downstream processing , অর্থাৎ নদীর স্রোতের মত কলকল করে বাজারে ঢুকছে বিক্রি হওয়ার জন্য।

    Please subscribe here to get all future updates on this post/page/category/website

    Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked *

    This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

     2019 2019 2019